Saksham Scholarship Scheme 2022-23 : আবেদন করুন সক্ষম স্কলারশিপে এবং পেয়ে যান সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকার অনুদান।

WhatsApp Group Join Now
Google News Follow

Saksham Scholarship Scheme 2022-23 : ভারতের বিভিন্ন স্তরের বিভিন্ন শ্রেণি এবং সম্প্রদায়ভুক্ত
ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষাক্ষেত্রে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে নানা প্রকার প্রকল্প, যোজনা
এবং স্কলারশিপ কার্যকরী করা হয়েছে।

সমাজের পিছিয়ে পড়া শ্রেণীর ছাত্র-ছাত্রী থেকে শুরু করে বিভিন্ন অনগ্রসর শ্রেণীর ছাত্র-ছাত্রীসহ বিশেষভাবে সক্ষম ছাত্রছাত্রীরা এই সমস্ত স্কলারশিপ, প্রকল্প, যোজনাগুলিতে আবেদন করতে পারেন।

কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে বিশেষভাবে সক্ষম ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য কার্যকরী এই স্কলারশিপটি সক্ষম স্কলারশিপ
নামেই পরিচিত। শিক্ষাক্ষেত্রে এগিয়ে যাওয়ার জন্য ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত অনুদান পেতে পারবেন।

কেন্দ্রীয় সরকারের মানবধিকার দপ্তরের তরফে অনুমোদিত এই স্কলারশিপটি অল ইন্ডিয়া কাউন্সিল ফর টেকনিক্যাল এডুকেশন-এর পক্ষ থেকে বিশেষভাবে সক্ষম ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য এই স্কলারশিপটি চালু করা হয়েছে। ছাত্র-ছাত্রীরা যাতে কারিগরি ক্ষেত্রে তাদের শিক্ষা সম্পন্ন করতে পারে এবং পরবর্তীতে নিজেদের ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত করতে পারে তার জন্যই এই স্কলারশিপটি কার্যকরী করা হয়েছে। আজকে এই পোস্টে সক্ষম স্কলারশিপে আবেদনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় যোগ্যতা কি কি, আবেদনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় নথি কি কি, আবেদন প্রক্রিয়ার সহ এ বিষয়ক সমস্ত তথ্য নিয়ে আলোচনা করা হবে।

সক্ষম স্কলারশিপের অধীনে ছাত্র-ছাত্রীরা কি কি সুবিধা পেতে চলেছেন:-

১.সক্ষম স্কলারশিপের অধীনে কেবলমাত্র বিশেষভাবে সক্ষম ছাত্র-ছাত্রীরা তাদের নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন।

২.যে সমস্ত ছাত্র-ছাত্রীদের দেহের ৪০ শতাংশ বা তার বেশি অংশ প্রতিবন্ধকতার স্বীকার তারাই কেবলমাত্র এই
স্কলারশিপের অধীনে আবেদনের ক্ষেত্রে যোগ্য।

৩.অল ইন্ডিয়া কাউন্সিল ফর টেকনিক্যাল এডুকেশন(AICTE)-এর তরফে স্বীকৃত যেকোনো প্রতিষ্ঠানের অধীনে ডিগ্রী অথবা ডিপ্লোমা কোর্সে প্রথম বর্ষে কিংবা দ্বিতীয় বর্ষে পাঠরত ছাত্র-ছাত্রীরা এই স্কলারশিপের অধীনে আবেদনের ক্ষেত্রে যোগ্য। তবে যে সমস্ত ছাত্র-ছাত্রীরা ল্যাটারাল এন্ট্রির মাধ্যমে দ্বিতীয় বর্ষে ভর্তি হয়েছেন তারাই কেবলমাত্র এই স্কলারশিপের অধীনে আবেদন করতে পারবেন।

৪.আবেদনের ক্ষেত্রে বিশেষভাবে সক্ষম ছাত্র বা ছাত্রীর পরিবারের বার্ষিক আয় ৮ লক্ষ টাকা বা তার চেয়ে কম হতে হবে।

৫.যেসমস্ত ছাত্র-ছাত্রীরা রাজ্য সরকার কিংবা কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনে অন্যান্য স্কলারশিপের সুবিধা ভোগ করে থাকেন তারা স্কলারশিপের অধীনে নিজেদের নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন না।

সক্ষম স্কলারশিপের অধীনে ছাত্র-ছাত্রীদের কত টাকা করে অনুদান প্রদান করা হবে?

যোগ্যতা সম্পন্ন সমস্ত ছাত্রছাত্রীদের প্রত্যেক বছর ৫০ হাজার টাকা করে অনুদান প্রদান করা হবে। যেকোনো ডিগ্রী কোর্সের কিংবা ডিপ্লোমা কোর্সের অধীনে প্রথম বর্ষে পাঠরত ছাত্রছাত্রীরা ৩ বছরের জন্য ৫০ হাজার টাকা করে পাবেন এবং দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রছাত্রীরা ২ বছরের জন্য এই একই পরিমাণ অনুদান পাবেন। ছাত্রছাত্রীদের তাদের কলেজের ফি, বই, খাতা, কম্পিউটার, স্টেশনারি নানা ধরনের জিনিস কেনার ক্ষেত্রে সহায়তা করার জন্য এই অনুদান প্রদান করা হয়ে থাকে।

আবেদনের প্রক্রিয়া:-

1. সক্ষম স্কলারশিপের অধীনে আবেদনের ক্ষেত্রে প্রথমেই আপনাকে buddy4study এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://www.buddy4study.com/scholarship/aicte-saksham-scholarship-scheme এ যেতে হবে।

Click here for Online application : https://www.buddy4study.com/scholarship/aicte-saksham-scholarship-scheme

2. এরপর আপনার সামনে যে ওয়েব পেজটি আসবে তার একেবারে শেষের দিকে থাকা Apply Now অপশনে ক্লিক করতে হবে এবং নিজের ফোন নম্বর, ইমেইল অ্যাড্রেস অথবা গুগল অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশনের
প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে হবে।

3. রেজিস্ট্রেশন এর প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হলেই আপনার সামনে ন্যাশনাল স্কলারশিপ পোর্টাল-এর অফিসিয়াল
ওয়েবসাইট https://scholarships.gov.in/ এর হোম পেইজটি চলে আসবে।

4. এরপর ওই পেইজে থাকা Click here for other Scholarship Schemes hosted on NSP for AY 2022-23 অপশনে আপনাকে ক্লিক করতে হবে।

5.উপরোক্ত অপশনে ক্লিক করলে আপনার সঙ্গে সক্ষম স্কলারশিপ এবং কিভাবে আবেদন করতে হবে তা
সংক্রান্ত গাইডলাইনগুলি চলে আসবে। এরপর ওই পেজের একেবারে শেষে থাকা Continue অপশনে ক্লিক করতে হবে।

6. এরপর আপনাকে আপনার রাজ্য, স্কিম, নিজের নাম, ঠিকানা, শিক্ষাগত যোগ্যতা, ফোন নম্বর, ইমেইল
অ্যাড্রেস সহ অন্যান্য তথ্যগুলি সঠিকভাবে পূরণ করতে হবে। এরপর আপনার ব্যাংকের সমস্ত ডিটেলস
সঠিকভাবে প্রদান করতে হবে এবং আধার কার্ড অথবা ব্যাংক একাউন্ট নম্বর টিকে নিজের আইডিন্টিফিকেশন
ডিটেল হিসেবে বেছে নিয়ে Register অপশনে ক্লিক করতে হবে।

7. এরপর আপনার রেজিস্টার্ড মোবাইল নম্বরে একটি ওটিপি আসবে। ওই ওটিপিটি সঠিক স্থানে লিখে লগইনের
প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে হবে।

8. লগইনের প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করলে আপনার সামনে আবেদনের ক্ষেত্রে উপযোগী ফর্মটি চলে আসবে। ওই
ফর্মটি সঠিকভাবে পূরণ করে submit অপশনে ক্লিক করলেই আবেদনের প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হবে। এক্ষেত্রে
আপনাকে একটি অ্যাপ্লিকেশন আইডি এবং পাসওয়ার্ড দেয়া হবে যেটি পরবর্তীতে কাজে লাগবে।

আবেদনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় নথি:-

  1. মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিকের মার্কশিট।
  2. পরিবারের বার্ষিক আয়ের সার্টিফিকেট।
  3. ডিরেক্টরেট অব টেকনিক্যাল এডুকেশন-এর দ্বারা ইস্যু করা অ্যাডমিশন লেটার।
  4. ছাত্র অথবা ছাত্রী যে প্রতিষ্ঠানে পাঠরত তার ডিরেক্টর / প্রিন্সিপাল অথবা প্রধানের দ্বারা ইস্যু করা সার্টিফিকেট।
  5. প্রতিবন্ধী সার্টিফিকেট।
  6. ছাত্র অথবা ছাত্রীর আধার কার্ড লিংক করা রয়েছে এরূপ ব্যাংক অ্যাকাউন্টের সমস্ত তথ্য।
  7. জাতিগত শংসাপত্র।
  8. আধার কার্ড।
  9. এই স্কলারশিপের জন্য আবেদনের ফর্মে আবেদনকারী সম্পর্কিত সমস্ত তথ্য সঠিকভাবে প্রদান করা হয়েছে তার স্বঘোষণা পত্র। এই সহজ স্নাতত্রে ছাত্র অথবা ছাত্রীর পিতা-মাতাকে স্বাক্ষর করতে হবে।

আরও পড়ুন : Swami Vivekananda Scholarship : স্বামী বিবকানন্দ স্কলারশিপের আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে,প্রতিমাসে ৫০০০/- হাজার টাকা।

WhatsApp Group Join Now
Google News Follow

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Articles